কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলব, গুগল এডসেন্স এর নিয়ম

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছে পাঠক ভাই ও বোনেরা। আজ আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করতে যাচ্ছি গুগল এডসেন্স এর বিস্তারিত সকল তথ্য নিয়ে। গুগল এডসেন্স এর নিয়ম, কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলব এবং গুগল এডসেন্স থেকে কিভাবে টাকা আয় করবো। আপনারা যদি গুগল এডসেন্স থেকে টাকা ইনকাম করতে চান তাহলে হইতো এই পোস্টটি খুজঁছেন। আপনি যদি অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে কোন তথ্য খোজেন তাহলে ঠিক ওয়েবসাইটে প্রবেশ করেছেন। আমাদের এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার জন্য ধন্যবাদ।

গুগল এডসেন্স কি?

গুগল এডসেন্স হলো গুগলের একটি বিজ্ঞাপন কোম্পানি যার মাধ্যমে বিশ্বের বড় বড় কোম্পানির পণ্য ও প্রোডাক্ট মানুষের কাছে প্রচার করার জন্য টাকা দিয়ে যে কোন বিজ্ঞাপন ইন্টারনেটে দেখাতে পারেন। বিশ্বের বড় বড় কোম্পানীগুলো এডওয়ার্ড এর মাধ্যমে গুগলকে বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকে এবং গুগল এডসেন্স সেই কোম্পানির বিজ্ঞাপন গুলো কিছু প্রক্রিয়ার মাধ্যমে প্রচার করে। আর সেই প্রক্রিয়া হলো ব্লগ, ইউটিউব ভিডিও ইত্যাদি।  অর্থাৎ ব্লগ/ওয়েবসাইট, মোবাইল এপস এবং ইউটিউব এ গুগল এডসেন্স বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকে এবং ব্লগ, এপস বা ইউটিউব চ্যানেল এর অনার কে গুগল এডসেন্স পে করে।

সোজাসোজি বলতে গেলে, গুগল এডসেন্স হলো একটি গুগলের বিজ্ঞাপন নেটওয়ার্ক যারা দ্বারা ব্লগিং ওয়েবসাইট বা ইউটিউবের মালিকেরা বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারেন।

কিভাবে লোকদের গুগলের বিজ্ঞাপন দেখাবেন তার জন্য আপনাকে ব্লগ বা ইউটিউব চ্যানেল এ কাজ করতে হবে। তারপরে আপনার সাইট বা চ্যানেল রান করার পর গুগল এডসেন্স এ আবেদন করে গুগলের বিজ্ঞাপন সু করিয়ে লোকদের দেখাতে পারবেন। মোট কথা তাই এডসেন্স এমন একটি মাধ্যম যার দ্বারা আপনি অনলাইনের মাধ্যমে টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

গুগল এডসেন্স এর কাজ কি?

গুগল এডসেন্স এর কাজ বিশেষ করে ব্লগিং, ওয়েবসাইট, ইউটিউব ভিডিও ইত্যাদিতে বিজ্ঞাপন দেখানো হয় সেই বিজ্ঞাপন ভিজিটরগণ দেখার পরে আপনার একাউন্টে গুগল প্রতি ক্লিকে কিছু টাকা প্রদান করে। কিন্তু এই বিজ্ঞাপন যে গুলো আমাদরে ওয়েবসাইটে বা ইউটিউব ভিডিওতে দেখানো হয় সে গুলোর জন্য গুগল আগে যে সকল কোম্পানি টাকার বিনিময়ে তাদের বিজ্ঞাপন দেখাতে চান তাদের কাছে টাকা গ্রহণ করে এবং যারা ব্লগিং, ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেল ইত্যাদির মালিকদের বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য গুগল তাদেরকে টাকা দেয়।

গুগল এডসেন্স কিভাবে আয় করে?

গুগল এডসেন্স থেকে অনলাইন ইনকাম করার জন্য আপনার একটি ব্লগ, ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেল খুলতে হবে। ধরুন আপনি যদি ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরী করেন তবে ব্লগিং এর প্রকার রয়েছে যেমন- (১) ব্লগার প্লার্টফর্ম (২) ওয়ার্ডপ্রেস প্লার্টফর্ম। উক্ত যে কোন একটিতে আপনি কাজ করতে পারেন। উক্ত ব্লগার বা ওয়ার্ডপ্রেস এ যদি আপনি কাজ করেন তবে সেখানে নিয়মিত ভাবে আর্টিকেল লিখতে হবে। এছাড়া যদি আপনি লেখা লেখি ঝামেলাই না পড়তে চান তবে আপনার জন্য সহজ পদ্ধতি হবে ইউটিউব চ্যানেল তৈরী করা। আপনি যদি ইউটিউব চ্যানেল নিয়ে কাজ করতে চান তাহলে আপনাকে ভিডিও আপলোড করতে হবে নিজের তৈরী করা।

আপনি ব্লগ বা ইউটিউব ভিডিও এর মাধ্যমে ভিজিটরদের আহ্বান করেন তারা যদি নিয়মিত আপনার আর্টিকেল বা ভিডিও গুলো দেখে তখনি আপনি গুগল এডসেন্স এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। গুগল এডসেন্স যদি আপনার ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেল দেখে আপনার অনুমোতি প্রদান করে তখনি আপনার প্লাটফর্ম গুলোতে গুগলের বিজ্ঞাপন দেখাতে পারবেন।

গুগল এডসেন্স থেকে অনুমোতি পাওয়ার পরে যতবার আপনার ওয়েবসাইট বা ইউটিউব ভিডিও তে বিজ্ঞাপন ভিজিটরগণ দেখবে এবং বিজ্ঞাপন গুলোতে ক্লিক করবে তখনি আপনার একাউন্টে গুগল এডসেন্স কোম্পানি আপনার একাউন্টে টাকা প্রদান করবে। এছাড়া যখন আপনার এডসেন্স একাউন্টে ১০০ ডলার হবে তখন আপনার নির্দিষ্ট  ব্যাংক একাউন্টে পেমেন্ট পাঠিয়ে দিবে সঠিক সময়ের মধ্যে।

গুগল এডসেন্স কিভাবে টাকা দেয়?

আমরা যখন নিজের ব্লগ, ওয়েবসাইট, ইউটিউব ভিডিওতে গুগল এডসেন্স এর বিজ্ঞাপন সেটআপ করে দেখাই তখন সেখানে বিভিন্ন ধরণের বিজ্ঞাপন দেখানো হয়। আর যখন কোন ব্লগ, ওয়েবাসাইট বা ইউটিউব ভিডিওতে ভিজিটর প্রবেশ করে এবং তরার যখন সেই বিজ্ঞাপন গুলো দেখে ক্লিক করে তখন গুগল এডসেন্স সেই বিজ্ঞাপন দেখা বা ক্লিক এর জন্য আপনার এডসেন্স একাউন্টে টাকা প্রদান করেন।

এছাড়া যখন আপনার ওয়েবসাইট বা ইউটিউবে দিনে দিনে ভিজিটর বাড়ে এবং ক্লিক বাড়তে থাকে আর যখন মাস শেষে আপনার গুগল এডসেন্স একাউন্টে ১০০$ ডলার হয়  তখন আপনার নিজস্ব ব্যাংক একাউন্টে সেই টাকা পাঠিয়ে দেওয়া হয় তাদের তারিখ অনুযায়ী ২১ তারিখের মধ্যে তারা আপনার পেমেন্ট প্রদান করেন।

ব্লগিং করে এডসেন্স থেকে আয়ঃ

আমরা যদি অনলাইনের মাধ্যমে টাকা উপার্জন করতে চাই তাহলে আমাদের এটি বিষয় নিয়ে বুঝতে হবে যে কি করে অনলাইন থেকে আয় করা যাবে। তাই আমি আপনাকে এখানে বলবো কিভাবে অনলাইনের মাধ্যমে আয় করবেন।

১। ব্লগার ওয়েবসাইট ২। ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট ৩। ইউটিউব চ্যানেল এই তিনটি প্লার্টফর্মের মাধ্যমে আপনি গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে অনলাইন টাকা উপার্জন করতে পারবেন। উক্ত তিনটি থেকে আপনাকে যে কোন একটি বিষয় বেছে নিতে হবে যে কোনটিতে আপনি আজ করতে ইচ্ছুক।

আপনি যদি কম্পিউটারে আপনি টাইপিং কাজ করতে পারেন তবে আমি আপনাকে বলবো ব্লগার বা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আর্টিকেল লিখে গুগল এডসেন্স থেকে আয় করতে পারেন। আর যদি আপনি টাইপ না করতে না পারেন তবে ভিডিও তৈরি করে কাজ করতে পারবেন ইউটিউব চ্যানেল এর মাধ্যমে।

তো চলুন ব্লগার ওয়েবসাইট, ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট, ইউটিউব চ্যানেল এর মাধ্যমে কিভাবে টাকা উপার্জন করা যাবে তার বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

ব্লগার সাইট থেকে এডসেন্স আয়ঃ

অনলাইন এর মাধ্যেমে টাকা উপার্জন করার সবচেয়ে সহজ মাধ্যম হলো ব্লগিং। আপনাদের জন্য সহজ প্ল্যাটফর্ম হলো ব্লগার। যারা টাকার বিনিময় ছাড়া অনলাইন ইনকাম করতে চান তাদের জন্য এটি একটি ফ্রি প্ল্যাটফর্ম।

ব্লগার গুগল এর একটি ফ্রী প্ল্যাটফর্ম। ব্লগার দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরী করার যায় ১০০% ফ্রীতে। এখানে কোন কিছু কিনে কাজ করতে হয় না। যেমন: হোস্টিং, ডুমেইন, থিম ইত্যাদি সকল কিছু ব্লগারের জন্য একদম ফ্রি।

আপনি মনে মনে ভাবছেন যে, ফ্রীতে আবার ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় নাকি? আমি বলবো হ্যাঁ। ব্লগারে কোন প্রকার অর্থ খরচ ছাড়াই সুন্দর ডিজাইন করে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

ব্লগিং শুরু করার আগে কিছু বিষয় আপনার জানা থাকতে হবে যেমন: আপনি কোন ভাষায় ব্লগিং করবেন ইংরেজি না বাংলা ভাষায়। আপনি যে কোন ভাষা ব্লগিং করতে পারবেন। এছাড়া আরো বিষয় আছে তা হলো আপনার ব্লগিং ইংরেজি বা বাংলা হোক না কেন এখানে কি বিষয় নিয়ে কাজ করবেন তা নিশ্চিত করতে হবে।  যেমন ধরুন বাংলাদেশের অনেক লোক আছে যারা  শিক্ষার খবর, বিজ্ঞান, প্রযুক্তি, স্বাস্থ্য ও  চিকিৎসা, চাকরির খবর, কৃষি ব্যবস্থা, অনলাইন আয় ইত্যাদি নিয়ে ব্লগিং  করে থাকে।

আর্টিকেল লিংকঃ কিভাবে একটি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন বাংলা টিউটরিয়াল বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন।

ওয়ার্ডপ্রেস থেকে এডসেন্স আয়ঃ

ইন্টারনেট এর মাধ্যেমে টাকা ইনকাম করার বড় মাধ্যম হলো ব্লগিং। আপনাদের জন্য সহজ একটি প্ল্যাটফর্ম ওয়ার্ডপ্রেস । যার মাধ্যমে আর্টিকেল লিখে টাকা ইনকাম করা যাবে গুগল এডসেন্স এর বিজ্ঞাপন দেখিয়ে।

ওয়ার্ডপ্রেস গুগলের একটি প্ল্যাটফর্ম। ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরী করতে যা যা লাগবে তা আপনাকে টাকার বিনিময়ে ক্রয় করতে হবে যেমন: হোস্টিং, ডুমেইন, প্রিমিয়াম থিম ইত্যাদি সকল কিছু।

আপনি মনে মনে ভাবছেন যে, ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে সাইট খুললে অনেক টাকার প্রয়োজন? আমি বলবো একদম না। অল্প কিছু টাকা খরচ করে মনের মতো করে একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট তৈরী করা সম্ভব। যেমন- হোস্টিং কিনার জন্য আপনাকে কিছু টাকা খরচ করতে হবে, ডুমেইন নাম কিনার জন্য কিছু টাকা খরচ করতে হবে এবং থিম ক্রয় করার জন্য কিছু টাকা কয় করতে হবে। উক্ত জিনিজ গুলো ক্রয় করার জন্য ৩-৪ হাজার টাকার মতো খরচ হতে পারে।

ওয়ার্ডপ্রেস সাইট শুরু করার আগে কিছু বিষয় আপনার জানা থাকতে হবে যেমন: আপনি কোন ভাষায় ব্লগিং করবেন ইংরেজি না বাংলাতে। আপনি যে কোন ভাষাতে ব্লগিং করতে পারবেন আপনি যদি বাংলাতে বেশি বুঝেন তবে বাংলাতে আর্টিকেল লিখবেন আর যদি ইংরেজিতে করতে চান তবে তাও করতে পারবেন। উক্ত ব্লগিং ইংরেজি অথবা বাংলা হোক না কেন, আপনি ওয়ার্ডপ্রেস এ কি বিষয় নিয়ে কাজ করবেন তা নির্বাচন করতে হবে। যেমন -বাংলাদেশের অনেক লোক আছে যারা  শিক্ষার খবর, বিজ্ঞান, প্রযুক্তি, স্বাস্থ্য ও  চিকিৎসা, চাকরির খবর, কৃষি ব্যবস্থা, অনলাইন আয় ইত্যাদি নিয়ে ব্লগিং করে থাকে।

আর্টিকেল লিংকঃ কিভাবে একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট তৈরি করবেন বাংলা টিউটরিয়াল বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে এডসেন্স আয়ঃ

ইউটিউব থেকে টাকা ইনকাম এর জন্য প্রথমে আপনাকে একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করতে হবে এবং  আপনার নিজের তৈরি করা ভিডিও টি সেখানে আপলোড করতে হবে, তারপরে আপনার ব্যক্তিগত একটি চ্যানেলে হবে। ২০-৩০ ভিডিও আপলোড করার পরে গুগল এডসেন্স থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য আবেদন করতে পারবেন।

লিংকঃ কিভাবে একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন বাংলা টিউটরিয়াল বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন।

আপনি যদি ব্লগিং বা ইউটিউব শুরু করতে চান? তাহলে নিম্নের জিনিস গুলো প্রয়োজন হবেঃ

  • প্রথমে একটি স্মার্ট মোবাইল ফোন, ল্যাপটপ বা কম্পিউটার
  • এবং আপনার নিজস্ব একটি ইমেইল একাউন্ট।
  • এছাড়া ইন্টারনেট বা ওয়াইফাই সংযোগ।
  • উক্ত জিনিস গুলো থাকলে সহজেই ব্লগিং করতে পারবেন।

কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলবঃ

প্রথমে আমদের জানতে হবে উপরের অংশে দেওয়া ব্লগ/ওয়েবসাইট ও ইউটিউব চ্যানেল এর জন্য কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলতে হয়?

একটি গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলার জন্য প্রথমে আপনাকে গুগল এডসেন্স এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। আপনি চাইলে যে কোন ব্রাউজারে গিয়ে গুগল এডসেন্স লিখে সার্চ করে এডসেন্স ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে পারবেন। লিংক Google AdSense সরাসরি প্রবেশ করুন এক ক্লিকে।

Step-1: – এডসেন্স ওয়েবসাইটে প্রবেশ করার পর নিচে দেয়া ছবির মতো একটি পেজ আসবে।

কিভাবে গুগলএডসেন্স একাউটন্ট খুলবো।
কিভাবে গুগলএডসেন্স একাউটন্ট খুলবো।

Step-2:- অতপর  “Get Started” বাটুনে ক্লিক করতে হবে। ক্লিক করার পর নিচের ছবির মতো একটি পেজ আসবে।

কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খোলব
কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খোলব

Step-3:- এরপর আপনার ওয়েবসাইট এর লিংক, ইমেইল দিয়ে ফরমটি পুরন করতে হবে। তারপর একেবার নিচের অংশে Yes রেডিও বাটুনে ক্লি করে Save and Continue বাটুনে ক্লিক করতে হবে। এবার নিচের ছবির মতো একটি পেজ আসবে।

কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলব
কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলব

Step-4: এবার আপনার ওয়েবসাইট এর নাম সহ যে পেজটি এসেছে সেখানে কান্ট্রি এর জায়গাও আপনার দেশের নাম সিলেক্ট করে দিতে হবে। তারপর Agreement এ yes রেডিও বাটুনে ক্লিক করে CREATE ACCOUNT বাটুনে ক্লিক করতে হবে। তারপর নিচের পেজের মতো একটি পেজ  আসবে।

গুগল এডসেন্স একাউন্ট খোলার নিয়ম
গুগল এডসেন্স একাউন্ট খোলার নিয়ম

Step-5:  এই পৃষ্ঠাটি Google AdSense এর একাউন্ট পেজ। এবার এখানে থেকে  Get Started বাটুনে ক্লিক করতে হবে। ক্লিক করার পর আপনাকে একটি Code দেয়া হবে। নিচের ছবিতে দেখুন।

গুগল এডসেন্স একাউন্ট খোলার নিয়ম
গুগল এডসেন্স একাউন্ট খোলার নিয়ম

Final Step: এবার এই কোড টি কপি করে আপনার ওয়েবসাইট এ গিয়ে Code Editor যেতে হবে। এবং ওয়েবসাইট এর <head> এবং </head>  এর মাঝখানে পেস্ট করে সেভ করতে হবে। সেভ করার পর এডসেন্স একাউন্ট এ Done বাটুনে ক্লিক করতে হবে। এবার আপনার কাজ শেষ। আপনার এডসেন্স এর জন্য আবেদন করা হয়ে গিয়েছে।

এবার আপনি এডসেন্স একাউন্টে গিয়ে Payment Option ক্লিক করে আপনার পেমেন্টিএর বিস্তারিত তথ্য দিতে হবে। নিচের পেজটি দেখুন:

গুগল এডসেন্স পেমেন্ট ঠিকানা
গুগল এডসেন্স পেমেন্ট ঠিকানা

এতোটুকো কাজ করার পর আপনার আবেদনটি রিভিউ এর জন্য গুগল এর কাছে রয়েছে। তারা আপনার ওয়েব সাইটটির কন্টেন্ট, কোয়ালিটি, নীতিমালা যাচাই করার পর ১ দিন থেকে  ২ সপ্তাহ সময়ের মধ্যে আপনার আবেদনের রেজাল্ট জানিয়ে দেবে।  আপনার সাইট বা চ্যানেল গুগলের শর্তমতে যদি ঠিকঠাক হয় তবে এডসেন্স টিম আপনার সাইট বা চ্যানেলেটির জন্য এডসেন্স এপ্রোভাল দিয়ে দেবে। যখন আপনার সাইট বা চ্যানেলে এডসেন্স এপ্রোভ হবে তখন আপনি সাইট বা চ্যানেলে এড কোড বসিয়ে নিচে দেয়া ছবির মতো ওয়েবসাইটে গুগল এড দেখতে পারবেন।

এড এর ছবি:

গুগল এডসেন্স বিজ্ঞাপন
গুগল এডসেন্স বিজ্ঞাপন

এডসেন্স থেকে টাকা তোলার পদ্ধতিঃ

আমাদের দেশে অনেকেই  গুগল এডসেন্স ব্যবহার করে আয় করছেন। ব্লগ থেকে ইনকামের পাশাপাশি ইউটিউব চ্যানেল মনেটাইজেশন করে বিপুল সংখ্যক লোক গুগল এডসেন্স থেকে মাসে হাজার হাজার টাকা ইনকাম করছে ঘরে বসেই।

আমরা জানি গুগল এডসেন্স এর টাকা জমা হয় সিপিসির উপর নির্ভর করে। আপনার সিপিসি যদি বেশি হয় আপনি বেশি টাকা ইনকাম করতে পারবেন যেমন- এক ক্লিক = যদি সিপিসি ০.০১$ হয় আপনি আপনার একাউন্টে ০.০১$ ডলার পাবেন। বাংলাদেশে ১$ ডলার = ৮৫/- টাকা গনণা করা হয়।

গুগল এডসেন্স থেকে নিয়মিত চাকরির মতো বেতন পাবেন যেমন: প্রতি মাসে যদি আপনার একাউন্টে ১০০$ বা তার অধীক ডলার ইনকাম হয় তাহলে এডসেন্স টিম আপনাকে  তাদের মাসিক তারিখ ২১ হিসেবে আপনার একাউন্টে প্রদান করে দিবে। (তবে ১০০$ ডলারের নিচে কোন অবস্থাতেই আপনার ব্যাংক একাউন্টে এডসেন্স টাকা প্রদান করবে না)।

টাকা তোলার প্রক্রিয়া:

আপনারা যে কোন ব্যাংকের একাউন্ট করে এডসেন্স এর পেমেন্ট গ্রহণ করতে পারবেন। যদি আপনার ব্যাংক একাউন্ট না থাকে তবে মোবাইল ব্যাংকিং রকেট একাউন্টের মাধ্যমে এডসেন্স এর টাকা গ্রহণ করতে পারবেন।

পরিশেষ আলোচনাঃ

পরিশেষে বলা যায় যে, গুগল এডসেন্স হলো বিশ্বের সব চেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন ইনকাম করার সহজ মাধ্যম। উক্ত এডসেন্স ব্যবহার করে অনেক মানুষ জীবনের উন্নয়ন করছেন। আপনি যদি গুগল এডসেন্স নিয়ে কাজ করতে চান তবে আমাদের এই ওয়েবসাইটের পুরো আর্টিকেল মনযোগ দিয়ে পড়ুন। আমরা উপরের অংশে এডসেন্স একাউন্টের বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

আমাদের এই ওয়েবসাইটের পোস্ট আপনার ভালো লাগলে শেয়ার করতে ভুলবেন না। ধন্যবদা সকল পাঠক ভাই ও বোনদের।

1 thought on “কিভাবে গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলব, গুগল এডসেন্স এর নিয়ম”

Leave a Comment