এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়]

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট  : বর্তমানে অনেক লোক আছে যারা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে প্রচুর পরিমাণে টাকা ইনকাম করা যাচ্ছে। আমাদের এ সময় দেখা যায় কম্পিউটারে তুলনায় মোবাইল ইউজার অনেক বেশি তাই লোকেরা বিভিন্ন ধরনের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে প্রচুর টাকা ইনকাম করা যাচ্ছে।

আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে ইনকাম করতে চান তবে আপনিও আমাদের ওয়েবসাইটে আর্টিকেলটি পড়ার মাধ্যমে সকল ধরনের নির্দেশনা পেয়ে যাবেন। আর সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে ইনকাম করতে চান এবং কিভাবে ইনকাম করবেন সেই সকল নির্দেশনা পেয়ে যাবেন অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট পিডিএফ ফাইল সহ।

আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে অনলাইনে আয় করতে চান তবে আমাদের আর্টিকেলটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়]
এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়]
আপনি যদি এন্ড্রয়েড ডেভলপার সম্পন্ন নির্দেশনা পেতে চান তবে আমাদের লেখাটির মাধ্যমে আপনার সাথে শেয়ার করব কিভাবে আপনি জানতে পারবেন সঠিক অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভলপমেন্ট করতে হয় তাই আপনি আমাদের লেখাগুলো নিজের মাথায় রাখুন।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করতে যা প্রয়োজন

আপনি যদি একজন অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভলপার হতে চান তাহলে আপনাকে এ বিষয়ে অনেক ধারণা নিতে হবে। আপনি যদি একজন অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডেভেলপার হিসেবে কাজ করতে চান তবে আপনাকে বিশেষ কিছু জিনিসের প্রয়োজন হবে সেগুলো জানতে হলে আমাদের দেওয়া আর্টিকেলটি আরো গভীরভাবে মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য কম্পিউটার

আপনি যেহেতু অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি করার পর আমাদের সেটিং পরীক্ষা বা টেস্ট রান করাতে হয় সেজন্য আমাদের এমুলেটর বাড়িতে ফোন ব্যবহার করতে হয় যা একটি এন্ড্রয়েড মোবাইলের মত কাজ করে।

আমরা জানি বিভিন্ন রকমের ডিভাইস এ একটি কাজ করবে কিনা সেটা দেখার জন্য ইমুলেটর ব্যবহার করাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ হয় এবং এ জন্য ভালো মানের একটি কম্পিউটার অনেক প্রয়োজন।

আপনার সাথে ওয়েব ডেভেলপার হিসেবে কাজ করতে চান তবে আপনাকে ব্যবহার করতে হবে একটি কম্পিউটার তবে এই কম্পিউটার কেনার জন্য আপনাকে অতিরিক্ত টাকা খরচ করতে হবে না মোটামুটি মানের একটি কম্পিউটার কিনে নিবেন আর যদি আপনার আগে থেকেই কম্পিউটার থাকে তো অনেক ভালো।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য একটি মোবাইল

আপনি যখন একটি অ্যাপ তৈরি করবেন তখন পর্যন্ত সম্পূর্ণ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্য একটি এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন হবে। তার জন্য অবশ্যই একটি এন্ড্রয়েড মোবাইল ফোন থাকতে হবে যেখানে আপনাকে অবশ্যই অ্যান্ড্রয়েড ওএস বিদ্যমান থাকতে হবে।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য ইউএসবি ক্যাবল

আপনি তখন অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবেন তখন আপনাকে অবশ্যই আপনার মোবাইলকে কম্পিউটারের সাথে সংযুক্ত করতে হবে।

আপনি যদি কম্পিউটারের সাথে মোবাইল সংযুক্ত করার জন্য ইউএসবি ক্যাবল ব্যবহার না করেন তবে আপনি কিন্তু সংযোগটি দিতে পারবেন না তাই আপনাকে অবশ্যই ইউএসবি কেবল টি অবশ্যই ব্যবহার করতে হবে তাই আপনার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি জিনিস হচ্ছে সেটি হচ্ছে ইউএসবি ক্যাবল।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য যা শিখতে হবে

আপনি যদি আমাদের দেওয়া উপরের আলোচনা গুলো মনোযোগ সহকারে পড়ে থাকেন তবে আপনিও জানতে পেরেছেন অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করতে কি কি প্রয়োজন হয় আপনি যদি সে সকল জিনিসপত্র যোগাড় করতে পারেন তবে আপনিও অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য প্রস্তুত।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য অনেক বিষয় শিখতে হয় তার মধ্যে যে বিষয়গুলো আপনাকে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে সেই বিষয়গুলো আমরা আপনাকে এখানে জানাবো তো চলুন দেখে নেয়া যাক অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য যা শিখতে হবে।

জাভা ও কটলিন

আমরা বর্তমান সময়ে যে কোন এন্ড্রয়েড মোবাইলের জন্য দুইটি ভাষাতে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস তৈরি করতে পারে মূলত এটা প্রয়োজন হয় যখন আপনি কোন কাজ সম্পাদন করতে চাচ্ছেন মনে করুন আপনি একটা বাটন দিয়ে স্মার্ট ফোনের টর্চ চালু করতে চান সে ক্ষেত্রে আপনার জাভা অথবা কটলিন দিয়ে বাটনটিকে প্রোগ্রামিং করতে হবে।

এখন আপনার প্রশ্ন হতে পারে যে যাবা নাকি কটলিন কোনটা শিখবেন আপনাকে বোঝার জন্য সহজ করে বলছি আপনি যদি প্রোগ্রামিং এর বেসিক তথ্য জানান তবে যেকোনো বিষয় দিয়ে শুরু করতে পারেন আপনি যে বিষয়টা ভালো জানেন সেটা দে শুরু করতে পারবেন আর যদি আপনি একদম নতুন হয়ে থাকেন তবে আমরা আপনাকে পরামর্শ প্রদান করব আপনি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য কটলিন দিয়ে শুরু করতে পারেন এটি অনেক সহজ।

কিন্তু আপনি যদি জাভা দিয়ে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করা শুরু করতে পারেন তবে এতে আপনি সহজেই কাজ খুঁজে পাবেন তবে কটলিন যেহেতু গুগোল নিজে ডেভলপ করেছে সেহেতু অফিশিয়াল ডকুমেন্ট অনেক সহজ সরল ভাবে সাজানো হয়েছে তাই আপনি আপনার ইচ্ছামতো যেকোনো একটি বিষয় নিয়ে কাজ শুরু করে দিতে পারেন।

আপনি যদি নিজের ঘরে বসে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এর কাজ শিখতে চান তবে বর্তমানে আপনি একটি ভালো উপায় পেয়ে যাবেন সেটি হচ্ছে ইউটিউব চ্যানেল এবং বিভিন্ন ধরনের অক্সাইড সেগুলোতে আপনি সঠিক কিছু তথ্য পেয়ে যাবেন যার মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করতে পারবেন খুব সহজেই।

আর সব থেকে মজার বিষয় হচ্ছে আপনি যদি ইউটিউব এবং ওয়েবসাইটের মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এর কাজ করতে চান তবে একদম বিনামূল্যে সেখানেতে পারবেন এর জন্য আপনাকে কোন টাকা খরচ করতে হবে না।

অ্যান্ড্রয়েড স্টুডিও শিখতে হবে

আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট শিখতে চান তবে আপনাকে আরও একটি বিষয় নিয়ে ভাবতে হবে সেটি হচ্ছে অ্যান্ড্রয়েড স্টুডিও। অ্যান্ড্রয়েড স্টুডিও বলতে বুঝায় এটা একটি Integrated development environment. যেখানে আপনি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য সকল ধরনের কোট করতে পারবেন ডিজাইন করবেন কন্টাক্ট এ যুক্ত করবেন কিভাবে এখানে ফাইল খুলতে হয় ছবি যুক্ত করতে হয় লেআউট নির্ধারণ করতে হয় সেই সকল বিষয় সম্পর্কে জানতে পারবেন আর এর সাথে আপনাকে জানতে হবে কিভাবে বিভিন্ন সময় ভুল ভ্রান্তি গুলো নির্ণয় করা যায় সেজন্য ডিবাগিং সম্পর্কে সঠিক ধারণা নিতে হবে।

আপনি যদি android-studio শিখতে চান তবে আমরা আপনাকে এটি শিখার জন্য একটি সহজ লিংক শেয়ার করব সেখানে ক্লিক করে আপনি অ্যান্ড্রয়েড স্টুডিও সেখানেতে পারবেন খুব সহজেই কাজ শেখার জন্য আপনাকে কোন টাকা খরচ করতে হবে না শুধুমাত্র গুগলে সার্চ করে বিষয়গুলো ধারণা নিতে পারবেন।

আপনি যদি android-studio শিখতে চান তবে এখানে ক্লিক করুন

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ এর ভিতরে চলমান বিষয়গুলো জানতে হবে

আমরা জানি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ এর ভিতরে চলমান বিষয়গুলো জানা অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি অ্যাপ এর ভিতরে বিভিন্ন পর্যায় কি কি ঘটে সেটা জানাটা অনেক প্রয়োজন।

মনে করুন আপনি যখন একটা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ চালু করবেন তখন সেখানে অন ষ্টার ইভেন শুরু হয় এবং অ্যাপটা চালু হয় এভাবে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ঘটনা ঘটে যাতে করে তাদের কাজগুলো সম্পন্ন করতে পারেন।

বিষয়গুলোর প্রতি আপনাকে সঠিক জ্ঞান থাকতে হবে। যদি আপনি এটা জানতে পারেন শিখতে শুরু করার সময় আর অবশ্যই ফাইল সিস্টেম সম্পর্কে ভালভাবে আপনাকে জানতে হবে যেমন মেন অ্যাক্টিভিটি কোন অংশে কি থাকে জাভা এক্সএমএল ফাইল কিভাবে নির্দেশ করতে হয় এ ধরনের বিষয়গুলো আপনি শুরুতে শিখা কালীন অবস্থায় এ বিষয়গুলো জানতে পারবেন।

এক্সএমএল কাজে পারদর্শী হওয়া

আপনি যখন অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডেভেলপমেন্ট এর কাজ করার জন্য অ্যান্ড্রয়েড এর ভেতরে চলামান বিষয়গুলো কাজ শিখেছিলেন তারপর আপনাকে আরও একটি বিষয়ের গুরুত্ব দিতে হবে সেটি হচ্ছে এক্সএমএল ফাইল।

কয়েক বছর আগে এক্সএমএল কাজ করার জন্য ইন্টারফেস ডিজাইন করার জন্য এক্সএমএল সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা হতো কিন্তু এখনকার সময়ে ব্যবহার হয়ে আসছে তবে অ্যান্ড্রয়েড স্টুডিও তে ডিজাইন এন্ড ড্রপ ব্যবস্থা করার পর থেকে অনেক বেশি এক্সএমএল নতুন করে শিখে সম্পন্ন ডিজাইন করাটা অনেক ঝামেলা হয়ে যাচ্ছে তবুও কিছু ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই নিজের হাতে এক খামে লিখে ডিজাইন করতে হবে।

আপনি যখন অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার কাজ শুরু করবেন তখন আপনাকে অবশ্যই এর কাজ খুব গুরুত্বের সাথে শিখে নিতে হবে এখানে আপনাকে প্রচুর পরিমানে সময় ব্যয় করতে হবে আপনি যদি এই কাজটি সঠিকভাবে শিখতে পারেন তবে আপনি অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট এর কাজ অনেকটাই শিখে ফেলতে পারবেন।

উক্ত বিষয় গুলোর ছাড়া আপনাকে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার জন্য আরও কিছু বিষয় সম্পর্কে শিখতে হবে সেগুলো হচ্ছে-

  •  Firebase অথবা সার্ভার সাইড কাজ শেখা
  • গিটহাব ও গিট শিখ‌তে হ‌বে
  • ইন্টার‌নে‌টে স‌ঠিকভা‌বে সার্চ করা

আপনি যদি উক্ত বিষয়গুলো সঠিকভাবে সেখানেতে পারেন তবে আপনিও অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট কাজ করার জন্য যুক্ত হতে পারবেন। আপনি যখন এই কাজগুলো সঠিকভাবে পরিপূর্ণ শিখতে পারবেন তখন আপনিও অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে প্রচুর পরিমাণে টাকা আয় করতে পারবেন এখন আমরা আপনাকে দেখাব কিভাবে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে আয় করা যাবে তো চলুন দেখে নেয়া যাক।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে আয়

আপনারা যখন অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এর কোর্স কমপ্লিট করে শিখতে পারবেন তখন করাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ কারণ দিনশেষে আমাদের সকলেরই টাকা প্রয়োজন হয় সে ক্ষেত্রে শুধুমাত্র তখনই আমরা আয় করতে পারব যখন আমরা ভালভাবে এই কাজটি শিখতে পারবো।

আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে আয় করতে চান তবে বিভিন্ন উপায়ে আয় করতে পারবেন চলুন দেখে নেয়া যাক কি ধরনের বিষয়গুলো অবলম্বন করে আপনি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে আয় করবেন।

বিজ্ঞাপন দেখে আয়

মনে করুন আপনি একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে একটি গুগল প্লে স্টোরে অ্যামাজন অ্যাপ স্টোরে পাবলিশ করেন আপনার সেই অ্যাপটি প্রতিদিন 2000 মানুষ ব্যবহার করে আপনি আপনার অ্যাপের মাধ্যমে গুগোল অ্যাডমব বা ফেসবুক অ্যাপ এর সাহায্যে বিজ্ঞাপন দেখাতে পারেন।

আপনি যখন আপনার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ গুলোতে বিজ্ঞাপন দেখাতে পারবেন তখন আপনি সেগুলো থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণের টাকা আয় করতে পারবেন। আর যখন আপনার তৈরি করা এগুলো মানুষ ক্লিক করবে তখন সেখান থেকে আপনি আলাদা ভাবে টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন।

আপনাকে একটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে আপনি যে অ্যাপ তৈরি করেছেন সেখানে যে বিজ্ঞাপনগুলো দেয়া থাকবে সেখানে আপনি নিজে নিজে কখনোই ক্লিক করবেন না এ বিষয়ে থেকে বিরত থাকতে হবে যদি আপনি আপনার বন্ধুদের দিয়ে জোর করে ক্লিক করে নেন তবে আপনার একাউন্টে ডিজেবল হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে তাই এই কাজ থেকে বিরত থাকুন।

স্পন্সার থে‌কে আয়

স্পন্সর থেকে আয় মনে করুন আপনার কোন একটি অ্যাপ অনেক বেশি পরিমাণে ব্যবহার করা হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে আপনার কাছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের প্রোডাক্ট বা সার্ভিস প্রমোশনের জন্য আপনার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ দেখানোর জন্য বলতে পারে তার জন্য আপনাকে টাকা দেওয়া হবে এধরনের কাজ খুব সহজেই করে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন তবে এই কাজগুলো করার জন্য আপনাকে অবশ্যই ভালো কোয়ালিটি সম্পন্ন ডেভলপমেন্ট করে তৈরি করতে হবে।

আপনি যদি আমাদের দেওয়া তথ্যগুলো সঠিকভাবে অনুসরণ করে থাকেন তবে আপনিও অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে সহজে নিজের ঘরে বসেই অনলাইনে আয় করতে পারবেন।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করুন

শেষ কথাঃ

আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আজ আপনাকে জানিয়েছি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করে কিভাবে আয় করা যায় এবং অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ শিখতে কি কি প্রয়োজন হয় এবং কোথা থেকে আপনি সহজেই অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট এর কাজ শিখে নেবেন।

সব থেকে মজার বিষয় হচ্ছে আমরা আপনাকে একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করার পিডিএফ ফাইল প্রস্তুত করে দিয়েছি আপনি চাইলে আপনার মোবাইলে ডাউনলোড করে সেটি করতে পারবেন।

এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়] এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়] এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়] এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়] এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়] এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়] এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়] এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়] এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়] এন্ড্রয়েড এপস ডেভেলপমেন্ট pdf [অনলাইন আয়]

আমাদের ওয়েবসাইটের আর্টিকেলটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে তবে আপনাদের বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না আমাদের ওয়েবসাইটে নতুন নতুন অনলাইনে ইনকাম করার আপডেট তথ্য পেতে নিয়মিত ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

Leave a Comment

SOHOJINCOME.COM একটি শিক্ষামুলক ওয়েবসাইট। এখানে থেকে যে কোন বিষয় ফ্রিতে শিখতে পারবেন।

মূল ফিচার

সম্পূর্ণ ফ্রি কোর্স

সঠিক ও সহজ গাইডলাইন

লাভজনক ও সেকরেট ফিচার

ইনভেস্ট ছাড়া প্যাসিভ ইনকাম

নিশ্চিত আয়ের নিশ্চয়তা

অল্প সময়ে ইনকাম শুরুর গ্যারান্টি

যোগাযোগ

SOHOJINCOM.COM

ঢাকা, বাংলাদেশ।